• ১৯৭১ সালের ২৫ মার্চ কালরাতে পাক হানাদার বাহিনীর নৃশংস হামলার মধ্য দিয়ে বাংলার স্বাধীনতা অনিবর্তনীয় হয়ে ওঠে। রাত বারোটার পরে ঢাকায় যখন চলছিল স্বেচ্ছা-আত্মসমর্পন পর্ব, ঠিক প্রায় একই সময়ে চট্টগ্রাম সেনানিবাসে গর্জে ওঠে- “উই রিভোল্ট!” স্বাধীন বাংলাদেশ জড়িয়ে পড়ে জন্মযুদ্ধে, যার ডাক আসে কালুরঘাট বেতার থেকে। মেজর জিয়ার ডাকে সাড়া দিয়ে মরনপণ লড়াইয়ে সামিল হয় বাঙ্গালি সেনা, পুলিশ, রাইফেলসের ১১ হাজার যোদ্ধা।   ২৫ মার্চ সন্ধার পর থেকে আওয়ামীলীগের নেতারা ভিড় করতে থাকেন শেখ মুজিবের ৩২ ধানমন্ডির বাড়িতে। দলীয় সাধারন সম্পাদক তাজউদ্দীন ম...more..
  • বাংলাদেশের প্রবাসী সরকারের প্রধানমন্ত্রী তাজউদ্দীন আহমেদের মতে স্বাধীনতা যুদ্ধে চট্টগ্রামের সেনা বিদ্রোহের অবদান ছিলো স্ট্যালিনগ্রাডের মত। আর দুঃসাহসী এ কাজটি করেছিলেন অকুতোভয় সেনানী মেজর জিয়া। তিনি ছিলেন পাকিস্তান আর্মির এক মেজর, ৮ম ইষ্ট বেঙ্গল রেজিমেন্টের সহ-অধিনায়ক। একজন সৈনিক যেখানে দেশের সার্বভৌমত্ব রক্ষার শপথ নেয়, এমন কি ধর্মগ্রন্থ নিয়েও স্রষ্টার সামনে হাজির নাজির হতে হয়, সেখানে কি এমন হলো যে, ২৫ মার্চ দিবাগত রাতে পাকিস্তান রক্ষার শপথ ভেঙে জিয়া ঘোষণা করলেন “উই রিভোল্ট।” তার মানে, তিনি পাকিস্তান ভাঙবেন! এর পরে ইউনিটে ফেরত গিয়ে অধিনায়ককে আটক ...more..
  • ২০১৩ সাল কি মার্কিন-বাংলাদেশ সম্পর্কের জন্য সন্ধিক্ষণ হতে যাচ্ছে? ১৫ কোটি মানুষের আমার এই দেশ ভারত আর মিয়ানমারের মাঝামাঝি অবস্থিত। সেই ১৯৭১ সালে স্বাধীনতার সময় মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রর অন্যতম দেশ, যারা আমাদের আত্মনির্ধারণের অধিকারকে স্বীকৃতি দিয়েছিল। অথচ গত কয়েকটি বছরে দুই দেশের মধ্যে সম্পর্কে টানাপোড়েন তৈরি হয়েছে। এক্ষেত্রে যুক্তরাষ্ট্রের দিকে অবশ্য আঙুল তোলা যায়। কারণ ক্রমেই বাংলাদেশে গণতন্ত্র মুখ থুবড়ে পড়ছে এবং অন্যান্...more..
  • তারেক রহমান অথবা না—তারেক রহমান; বাংলাদেশের রাজনীতি নিয়ে এলিট সমাজে এই বিতর্কের রাঁদেভু তো কম হলো না। আজ বিএনপির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের ৪৮তম জন্মদিনে আসুন না এই সত্য কবুল করি, অজস্র অপপ্রচার টপকে তিনি আজ এই অবারিত স্ব্বীকৃতিতে উজ্জ্বল যে, আগামীর অবশ্যম্ভাবী দেশনায়ক তিনি। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পরিচালনাধীন রাষ্ট্রের পরহিংসাময় এবং অসংখ্য ছিদ্রান্ব্বেষী তদন্তেও তার রাজনৈতিক বা অর্থনৈতিক স্খলন শনাক্ত হয়নি। এই না হওয়ার ঘটনা অথবা রাষ্ট্রের এক নম্বর খলনায়ক হিসেবে তাকে সাব্যস্ত করার অপপ্রয়াস সর্বোপরি এত ঝঞ্ঝায় বিরল এক আত্মশক্তিতে নিজেকে সুস্থি...more..
  • - এম এস আলম ভদ্রলোকের নাম আবুল। ছোট খাটো গড়ন। হাসিখুশি চেহারা। মুখে পাকা চাপদাড়ি। প্রথম দর্শনেই মনে হয় সাদা মানুষ। কথা হচ্ছিল ডাক্তারের চেম্বারে বসে। আমাদের আগে আরো কয়েকজন রুগী আছে। হরেক রকমের মানুষ, নানান সমস্যা। গল্প করার জন্য ঘন্টা দেড়েক সময় পেলাম। আলাপ শুরু হলো অসুখের বিষয় দিয়ে। এরপরে বাঙ্গালির স্বভাবসিদ্ধ রীতিতে অজান্তেই শুরু হয় ব্যক্তিগত আলাপচারিতা- সুখ দুঃখ, ...more..
  • জিয়াউর রহমানকে আমরা ভালোবাসি। তার ক্রম উত্তরসুরী তারেক রহমান। ভালোবাসি তারেক রহমানকে। তার রাজনৈতিক পদচারনা শুরু ব্যাপক সাড়া ফেলেছে রাজনৈতিক জটিল অঙ্গনে। রাজনীতি করা সহজ। দলকে ক্ষমতায় নেয় পথ বড় দূর্গম, দূলংঘ। দূর্গম সে পথে দীপ্ত পদক্ষেপে এগিয়ে চলছে দল, এগিয়ে চলছে তারেক রহমান। দেশকে আওয়ামী জাহেলিয়াতের কারাগার থেকে উদ্ধার করার আন্দোলনে, তারেক রহমানকে দেশের রাষ্ট্রনায়ক বানানোর আন্দোলনে আমরা সকল জাতীয়তাবাদীরা সচেষ্ট ছিলাম, আছি, থাকবো এবং ইনশাল্লাহ। মহান আল্লাহর উপর আস্থা, বিশ্বাস ও ভরসা রেখে আশা রাখি আমাদের চেষ্টা সফল হবেই। দলের র্দূদিনে কারন গুলো খুজতে ...more..
  • "পরাধীন দেশের স্বাধীন ভাবনা" by Friendz Ssa on Tuesday, June 28, 2011 at 2:30am সরকার বিরোধী ইস্যুর পাল্লা ভারী হলেও অসুবিধা কি?? মুজিবের মতো বাকশাল শাসন চলতেছে। বিরোধী দল প্রায় মরহুম। তাদের কাছ থেকে বাগড়াম্বরতা ছাড়া কিছু বের হচ্ছে না। কে আনবে পরির্বতন?? গায়েবী ভাবে কিছু হবে?? আকাশ থেকে গায়েবি গজব বড়জোর ঠাটা (বজ্রপাত) পারতে পারে। কিন্তু পিএম অফিসে ঠাটা প্রতিরোধক ডিভাইস লাগানো আছে। সুতরাং ঠাটায় কাজ হবে না। আর আল্লাহর কি ঠেকা পরছে পাপের ভারে নুয়ে পরা বাংলাদেশকে গায়েবি সা...more..
  • বাংলাদেশের জাতীয় ইতিহাসের এক ক্ষণজন্মা সত্তার স্মরণে আজ দেশবাসী শোকার্ত। তিনি শহীদ জিয়াউর রহমান। বাংলাদেশের প্রথম জননির্বাচিত রাষ্ট্রপতি। তার সৃষ্টিশীল নেতৃত্ব, দূরদর্শী রাজনৈতিক চিন্তা, জনসাধারণকে আত্মবিশ্বাসে বলীয়ান করার পদক্ষেপ এবং নিজের প্রশ্নাতীত সততা তাকে একযোগে তার সমসাময়িক কালের ঊর্ধ্বে প্রতিষ্ঠিত করে। বাংলাদেশ রাষ্ট্রকে তার নিজস্ব সত্তায় জাগিয়ে তুলে পথ চলার চেতনা নির্মাণে শহীদ জিয়া বলেছিলেন বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের কথা। প্লুরালিস্টিক বা বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রতি অখণ্ড নিবেদনের প্রমাণ রেখে গেছেন তিনি। সংবাদপত্রের বিরুদ্ধ মতের প্রতি তিনি ছ...more..
  • - ড. এমাজউদ্দীন আহমদ একটি ক্ষুদ্র রাষ্ট্রের সমস্যা বিশ্লেষণ করতে গিয়ে সুইডেনের নিরাপত্তা বিশারদ আর্লিং বিওল (Earling BIOL) বলেছেন : ‘ক্ষুদ্র রাষ্ট্রের সমস্যা অনেকটা পাইলট মাছের সমস্যার মতো, হাঙরের কাছাকাছি থেকেও কীভাবে তার মুখে না পড়ার কৌশল।’ ['The Rim state's problem is like the problem of a pilot fish, how to keep close to the shark without being eaten up.'] । ভারতের মতো বিরাট শক্তিধরের কাছাকাছি থেকে পাইলট মাছের মতো ক্ষুদ্রাকৃতি অথচ নিরীহ বাংলাদেশ কীভাবে নিজের সার্বভৌমত্ব রক্ষা করবে বাংলাদেশের নিরাপত্তা সমস্যার প্রকৃতি এইটিই। বাংলাদেশী ...more..
  • একাত্তরের রণাঙ্গনে জিয়াউর রহমানের বীরত্বগাথা লিখে শেষ করা যাবে না। তিনিই প্রথম ২৫ মার্চ রাতে পাকিস্তান সরকারের বিরুদ্ধে ‘বিদ্রোহ’ ঘোষণা করে স্বাধীনতা যুদ্ধের সূত্রপাত করেন। ২৭ মার্চ তিনিই চট্টগ্রামের কালুরঘাট বেতার কেন্দ্র থেকে স্বাধীনতার ঘোষণা দেন এবং ৩০ মার্চ জাতির উদ্দেশে একটি ভাষণ দেন। রণাঙ্গনে তার সবচেয়ে বড় বৈশিষ্ট্য ছিল, তিনি সবসময় সামনে থাকতেন এবং কমান্ডারদের সৈনিকের সামনে থাকতে পরামর্শ দিতেন। চট্টগ্রামের একটি ভয়াবহ যুদ্ধে আমরা তাকে বাংকারে যাওয়ার পরামর্শ দিয়েছিলাম। কিন্তু তিনি সেখানে যাননি। ব...more..
  • - শওকত মাহমুদ বাংলাদেশের জাতীয় ইতিহাসের এক ক্ষণজন্মা সত্তার স্মরণে আজ দেশবাসী শোকার্ত। তিনি শহীদ জিয়াউর রহমান। বাংলাদেশের প্রথম জননির্বাচিত রাষ্ট্রপতি। তার সৃষ্টিশীল নেতৃত্ব, দূরদর্শী রাজনৈতিক চিন্তা, জনসাধারণকে আত্মবিশ্বাসে বলীয়ান করার পদক্ষেপ এবং নিজের প্রশ্নাতীত সততা তাকে একযোগে তার সমসাময়িক কালের ঊর্ধ্বে প্রতিষ্ঠিত করে। বাংলাদেশ রাষ্ট্রকে তার নিজস্ব সত্তায় জাগিয়ে তুলে পথ চলার চেতনা নির্মাণে শহীদ জিয়া বলেছিলেন বাংলাদেশী জাতীয়তাবাদের কথা। প্লুরালিস্...more..
  • - মাহফুজ উল্লাহ শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের নাম বাংলাদেশের ইতিহাসের সঙ্গে ওতপ্রোতভাবে জড়িয়ে আছে। এটা কারও পছন্দ-অপছন্দের বিষয় নয়। যারা নিয়তিতে বিশ্বাস করেন তারা বলবেন, স্বাধীনতা যুদ্ধের সময় নিয়তি তাকে এই আসনে বসিয়েছে। নিয়তির কারণে তিনি পরিণত হয়েছিলেন বাংলাদেশের স্বাধীনতা সংগ্রামের মূর্ত প্রতীকে। যারা আজকে তার সেই ভূমিকা নিয়ে কূটতর্ক চালাচালি করেন, তারাও বুকে হাত দিয়ে বলতে পারবেন না—‘আমি মেজর জিয়া বলছি’ এই ঘোষণাটি তাদের উদ্দীপ্ত করেনি। ...more..